ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৩ নভেম্বর ২০১৭  ,
০৯:৫৪:৩৬ জুন  ২৩, ২০১৭ - বিভাগ: আন্তর্জাতিক


ব্রেক্সিটের পর অভিবাসীদের জন্য মের প্রস্তাব

Image

ব্রেক্সিটের পরও ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নাগরিক, যাঁরা ব্রিটেনে বৈধ অভিবাসী হিসেবে বসবাস করছেন, তাঁদের কোনো ধরনের ‘অরাজক পরিস্থিতির’ মুখোমুখি হতে হবে না বলে আশ্বস্ত করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে।  

ইইউর নাগরিকরা ব্রিটিশ নাগরিকের মতোই সমান সব ধরনের অধিকার পাবেন। ব্রেক্সিটের পরও শিক্ষা, চিকিৎসাসেবা এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা যেন পেতে পারে, সে ব্যাপারে ব্রিটিশ সরকার পদক্ষেপ নেবে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী। 

টেরিজা মে আরো বলেন, তাঁর দেশ কখনোই চায় না ব্রিটেনের অভিবাসী কোনো ইউরোপীয় নাগরিক দেশ ত্যাগ করুক।

সুইজারল্যান্ডের ব্রাসেলসে ইউরোপীয় কাউন্সিলের এক সম্মেলনে টেরিজা মে এসব বক্তব্য তুলে ধরেন। তিনি এমন একটা সময়ে এই বক্তব্য দিলেন, যখন যুক্তরাজ্য ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার (বেক্সিট) প্রক্রিয়া শুরু করেছে। ব্রিটেনে প্রায় ৩০ লাখ ২০ হাজার ইইউ নাগরিক আছেন। তাঁরা আশঙ্কা করছেন, ব্রেক্সিট কার্যকর হলে তাঁদের ব্রিটেন ছেড়ে চলে যেতে হবে।

বৈধ অভিবাসীদের আশ্বস্ত করে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কেউ কোনো ধরনের কষ্টকর পরিস্থিতির মুখোমুখি হবে না। যুক্তরাজ্য চায় না, কেউ সেখান থেকে চলে যাক বা তাদের পরিবার দুই ভাগ হয়ে যাক।’  

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর এ প্রস্তাবের পর সতর্ক মন্তব্য করেছেন কয়েকজন বিশ্বনেতা। 

জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল এটাকে ‘একটা ভালো শুরু’ বলে বর্ণনা করেছেন। তবে তিনি বলেছেন, ব্রেক্সিটকে ঘিরে অনেক ইস্যু রয়েছে, যেগুলো সমাধান করতে হবে।

ইইউ থেকে বের হয়ে যাওয়ার জন্য ইউকের হাতে ২০১৯ সালের মার্চ পর্যন্ত সময় রয়েছে। 


আন্তর্জাতিক'র অন্যান্য খবর

©সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি