ঢাকা, শনিবার ২৫ নভেম্বর ২০১৭  ,
২০:০৯:১১ জুন  ২২, ২০১৭ - বিভাগ: ঢাকা


জমে উঠছে মুন্সিগঞ্জের রাজনীতি

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে মুন্সিগঞ্জের তিনটি নির্বাচনী এলাকার রাজনৈতিক অঙ্গন এখন  সরগরম। মুন্সিগঞ্জ- ১, ২ ও ৩ এ (সংসদীয় আসন ১৭১, ১৭২ ও ১৭৩) চলছে প্রত্যক্ষ প্রচারণা। প্রধান দুই দলের নেতা-কর্মীর মধ্যে চাঙ্গাভাব চলে এসেছে। বিশেষ করে মুন্সিগঞ্জ-৩ আসনে আলোচিত প্রার্থী জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুল হাই ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনিসুজ্জামান আনিসের দিকে দৃষ্টি সবার। তিনি জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদের ছোট ভাই। এই আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দৌড়ে তিনি এগিয়ে রয়েছেন। তার ক্লিন ইমেজের পাশাপাশি নিয়মিত গণসংযোগ, বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ড, দলীয় কর্মসূচি ছাড়াও নেতা-কর্মীদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রয়েছে। আসনটিতে আওয়ামী লীগের অন্য মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন বর্তমান সংসদ সদস্য অ্যাড. মৃনাল কান্তি দাস, সাবেক এমপি আলহাজ মমতাজ বেগম, এম ইদ্রিস আলী এবং ফজিলাতুননেছা ইন্দিরা। অন্যদিকে বিএনপি থেকে মুন্সিগঞ্জ-৩ আসনে মনোনয়ন পাওয়ার লড়াইয়ে লিপ্ত হয়েছেন জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি আব্দুল হাই এবং সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা কামরুজ্জামান রতন। মুন্সিগঞ্জ-২ আসনে আওয়ামী লীগের এমপি সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও মনোনয়ন প্রত্যাশী। এছাড়া এ আসনে জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও টংগিবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার কাজী আব্দুল ওয়াহিদ, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী। এ আসনে জনমতে টংঙ্গিবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার কাজী আব্দুল ওয়াহিদ এগিয়ে রয়েছেন। বিএনপি থেকে মনোনয়ন পেতে যাচ্ছেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির কোষাধ্যক্ষ মিজানুর রহমান সিনহা। এ আসনে বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আব্দুস সালাম দলীয় মনোনয়ন চাইতে পারেন বলে জানা গেছে।  মুন্সিগঞ্জ-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি সুকুমার রঞ্জন ঘোষ মনোনয়ন প্রত্যাশী। এছাড়া এ আসনে সাবেক ছাত্রনেতা আওয়ামী লীগ কেন্দ ীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক গোলাম সরোয়ার কবীর, সিরাজদিখান উপজেলা চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে কাজ করছেন। তরুণ উদীয়মান আওয়ামী লীগ নেতা হিসেবে গোলাম সরোয়ার কবীর চায়ের টেবিলে ঝড় তুলেছেন। অন্যদিকে বিএনপি থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন বিএনপির সহ-সভাপতি শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু। এছাড়া বিকল্প ধারা থেকে সাবেক রাষ্ট্রপতি ডা. বি চৌধুরী বা তার পুত্র মাহী বি চৌধুরী নির্বাচন করবেন। তাদের অবশ্য জোট সমর্থিত প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অন্য কোনো দলের তৎপরতা তেমন একটা নেই বললেই চলে।


ঢাকা'র অন্যান্য খবর

©সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি