ঢাকা, বুধবার ২৮ জুন ২০১৭  ,
১১:৫২:৪৮ জুন  ১৪, ২০১৭ - বিভাগ: ফরিদপুর


শরীয়তপুরে শিশুকে কুপিয়ে জখম 

Image

শরীয়তপুরের জাজিরায় মেয়ে শিশু হিরা মনিকে (৮) ধারালো ছেনদা দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।


মঙ্গলবার (১৩ জুন) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। আহত হিরা মনি জাজিরা উপজেলার মানিক হাওলাদারের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানায়, জাজিরা উপজেলার চর জয়নগর মোল্লাকান্দি গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ২০১৬ সালের সোনা মিয়া হাওলাদার নামে এক ব্যক্তি খুন হয়। এ ঘটনার মামলায় চর জয়নগর মোল্লাকান্দি গ্রামের মানিক হাওলাদারকে ১৩ নম্বর আসামি করা হয়। এ মামলায় মানিক হাওলাদার দীর্ঘদিন জেল হাজতে থাকার পর কয়েকদিন আগে জামিনে মুক্তি পায়। এরপর উভয় পক্ষের মধ্যে আবারও বিরোধ দেখা দেয়।

আহত শিশুর বাবা মানিক হাওলাদার অভিযোগ করে বলেন, এ ঘটনার জেরেই মঙ্গলবার হিরা মনিকে কুপিয়ে বাড়ির পাশে পাটক্ষেতে ফেলে রেখে দেয় প্রতিপক্ষরা।

এদিকে স্থানীয় লোকজন শিশুটিকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে শিশুটির অবস্থার অবনতি দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ধারালো একটি ছেনদা উদ্ধার করেছে।

আহত শিশুর বাবা মানিক হাওলাদার বলেছেন, ‘দাদন হাওলাদার এবং তার পরিবারের লোকজন মিলে আমাকে হত্যা করার জন্য ধাওয়া করে। পরে আমি দৌড়ে পালিয়ে গেলে তারা আমার মেয়েকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।’

প্রতিপক্ষ দাদন হাওলাদার বলেছেন, ‘মানিক হাওলাদার যে হত্যা মামলার আসামি আমি সে মামলার বাদী। আমাকে ফাঁসানোর জন্য মানিক নিজে অথবা তার দলের কোন লোকজন অবুঝ শিশু মেয়েটিকে হত্যার চেষ্টা করেছে। প্রশাসনের কাছে এ জঘন্য ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে বিচারের দাবি করছি।’

জাজিরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নজরুল ইসলাম জানিয়েছেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। আহত শিশু হিরা মনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। এ বিষয়ে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফরিদপুর 'র অন্যান্য খবর

©সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি