ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৩ নভেম্বর ২০১৭  ,
১৩:২২:৪২ জুন  ১১, ২০১৭ - বিভাগ: রাজনীতি


উন্নয়নের মহাসড়ক’ খানাখন্দকে ভরা

Image

২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের স্লোগানে উল্লেখ করা উন্নয়নের মহাসড়ক এখন খানাখন্দে ভরা বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সরকারের পক্ষে এই বাজেট বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে না বলেও দাবি করেন তিনি।


রবিবার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন ফখরুল।

গত ১ জুন জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেটের বিষয়ে বিএনপির নেতারা তাদের প্রতিক্রিয়া দিলেও দলের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই বলা হয়নি। আর এই বক্তব্য তুলে ধরতেই এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

আগামী অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাব করতে গিয়ে অর্থমন্ত্রী একটি স্লোগানের উল্লেখ করেছেন। এটি হলো, ‘উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ: সময় এখন আমাদের’। মির্জা ফখরুল বলেন, “কিন্তু এই ‘উন্নয়নের মহাসড়ক’ খানাখন্দকে ভরা। এর উপর দিয়ে চলতে গেলে পদে পদে দুর্ঘটনার আশঙ্কা।

অর্থমন্ত্রী এবার যে বাজেট প্রস্তাব করেছেন তা চার লাখ ২৬৬ কোটি টাকার। এই বাজেট চলতি অর্থবছরের বাজেটের চেয়ে ১৭ শতাংশ বেশি। এই ‘বড়’ বাজেটের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আকার বড় করা হলেই ভাল বাজেট হয় না।’

ফখরুল বলেন, ‘অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য চার লক্ষ ২৬৬ কোটি টাকার ব্যয় সম্বলিত একটি বাজেট পেশ করেছেন। টাকার অংকের দিক থেকে এই বাজেট বাংলাদেশের জন্য সর্বকালের বৃহত্তম বাজেট। এই বাজেট বিশ্লেষণ করে আমরা যুগপৎ বিস্মিত, ক্ষুব্ধ এবং হতাশ হয়েছি। অতীত অভিজ্ঞতার আলোকে আমরা বলেতে পারি এই বাজেট বাস্তবায়নযোগ্য নয়। কেবলমাত্র অলীক স্বপ্ন-কল্পনাই এই প্রস্তাবিত বাজেটের ভিত্তি।’

প্রস্তাবিত বাজেটকে ‘জনগণের বঞ্চনার বাজেট’ দাবি করে একে বিএনপি প্রত্যাখ্যান করেছে বলে জানান দলের মহাসচিব। বর্তমান সংসদে জনগণের প্রতিনিধিত্ব নেই দাবি করে তিনি বলেন, ‘পার্লামেন্টে যেখানে কোন জবাবদিহিতা নেই, সেই পার্লামেন্টে এই বাজেট পেশ করা হয়েছে। এখানে সরকারের দায় কোথায়? জনগণের কাছে সরকারের কোন দায়বদ্ধতা নেই বলেই এই বঞ্চনার বাজেট জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়।’

ফখরুল বলেন, ‘বর্তমান সরকার যে সব মেগা প্রকল্প হাতে নিয়েছে সেগুলোর কাজ ২০১৭-১৮ অর্থবছরের মধ্যে বাস্তবায়ন করাই সরকারের অঘোষিত লক্ষ্য। এর জন্য প্রয়োজন হবে প্রচুর অর্থের। সেই অর্থের যোগান দেখানোর জন্যই জনগণের ওপরে করের বোঝা চাপিয়ে একটি গাণিতিক হিসেবের বাজেট হিসেবে এই বাজেট পেশ করা হয়েছে।’

রাজনীতি'র অন্যান্য খবর

©সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি