ঢাকা, শনিবার ২৫ নভেম্বর ২০১৭  ,
১২:৩৫:৩৫ জুন  ০১, ২০১৭ - বিভাগ: স্বাস্থ্য


ব্রেস্ট ক্যান্সারে এড়াতে করুন এই ৫ সহজ কাজ

Image

নিজেকে প্রশ্ন করুন, “ব্রেস্ট ক্যান্সার এড়ানোর সবরকম চেষ্টা আমি করছি তো?” নারীদের জীবনে আসা সবচাইতে ভয়াবহ কিছু বিপর্যয়ের একটি হলো ব্রেস্ট ক্যান্সার। এর ঝুঁকি কমিয়ে আনতে আপনি জীবনচর্চায় আনতে পারেন কিছু পরিবর্তন। এই কাজগুলো আপনাকে সাহায্য করবে ব্রেস্ট ক্যান্সার থেকে নিরাপদ থাকতে।

১) প্রতিদিন গ্রহণ করুন বেবি অ্যাসপিরিন

নিয়মিত কম ডোজের অ্যাসপিরিন হৃৎপিণ্ডের জন্য ভালো। এ কারণে অনেকেই তা গ্রহণ করেন। কিন্তু বেবি অ্যাসপিরিন বা কম ডোজের অ্যাসপিরিন সপ্তাহে কমপক্ষে ৩ বার গ্রহণ করলে আপনার ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি কমিয়ে আনতে পারে ১৬ শতাংশ পর্যন্ত।

২) হরমোন থেকে দূরে থাকুন

অনেকেরই ধারণা হরমোন পিল এবং থেরাপি চিকিৎসা হিসেবে ভাল, বিশেষ করে যেসব নারীর মেনোপজ দেখা দিছে তাদের জন্য। কিন্তু ইস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টেরনের মিশ্র থেরাপি ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়াতে পারে ৭৫ শতাংশ পর্যন্ত, যদিও তা কম সময়ের জন্য ব্যবহৃত হয়। শুধু ইস্ট্রোজেন ব্যবহার করে যে থেরাপি দেওয়া হয় তাতে বাড়ে ওভারিয়ান ক্যান্সারের ঝুঁকি, দীর্ঘ সময় ব্যবহার করলে তা ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকিও বাড়ায়।

৩) রাসায়নিক এড়িয়ে চলুন

জীবনের সকল ক্ষেত্রে প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার তথা “গ্রিন” জীবনচর্চা নিয়ে অনেকেই উৎসাহিত। এই ধরণের জীবনচর্চা ব্রেস্ট ক্যান্সার রোধে বড় ভূমিকা রাখতে পারে। রাসায়নিকের কম ব্যবহার অনেক দিক দিয়েই উপকারী। কম দূষণ, পরিষ্কার বায়ু, প্রকৃতি ভালো থাকা ইত্যাদি উপকারিতা আছে এর। পাশাপাশি দূষণ কমলে ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকিও কমবে। কারণ এক গবেষণায় দেখা যায়, পোস্ট মেনোপজাল ব্রেস্ট ক্যান্সার এবং নাইট্রোজেন ডাইঅক্সাইড (মানুষের তৈরি একটি গ্রিনহাউজ গ্যাস) এর মাঝে সংযোগ আছে।

৪) বসে থাকা বন্ধ করুন

ধূমপান থেকে দূরে থাকেন আপনি। কিন্তু আপনি কি জানেন ধূমপানে আসক্তির মতই ক্ষতি করতে পারে বসে থাকার অভ্যাস। সারাদিন বসে বসে সবকিছু করার অভ্যাসটি আমাদের হৃদরোগ এবং ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়। যে নারীরা দিনে ৬ ঘন্টা বা তার বেশি সময় বসে কাটান তাদের মায়েলোমা, ওভারিয়ান এবং ইনভেসিভ ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি বেশি হয় তাদের তুলনায় যারা দিনে ৩ ঘন্টার কম সময় বসে কাটান। আপনার কাজ যদি বসে বসে হয় এবং দাঁড়িয়ে কাজ না করতে পারেন তাহলে বারবার কাজের মাঝে হেঁটে আসুন। ফোন কল করার সময়ে এবং সহকর্মীদের সাথে কথা বলার সময়ে হাঁটুন। আপনার কর্মদিবসের অন্তত অর্ধেক সময় পায়ের ওপর কাটান।

৫) সন্তানকে বুকের দুধ পান করান

আপনি শিশুকে বুকের দুধ দেবেন নাকি ফর্মুলা দেবেন সেটা একান্তই আপনার সিদ্ধান্ত। কিন্তু প্রিমেনোপজাল এবং পোস্টমেনোপজাল দুই ধরণের ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকিই কমায় ব্রেস্ট ফিডিং, অন্তত কিছু বিশেষজ্ঞ তাই মনে করেন।

সুত্র: রিডার্স ডাইজেস্ট


স্বাস্থ্য 'র অন্যান্য খবর

©সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি